আচ্ছালামু আলাইকুম ওয়াঃ Login Register

মাশওয়ারা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা। দাওয়াত ও তাবলীগি কাজের নতুন ভাইদের জন্য

Homeদাওয়াত ও তাবলীগমাশওয়ারা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা। দাওয়াত ও তাবলীগি কাজের নতুন ভাইদের জন্য

আচ্ছালামুআলাইকুম ওয়াঃ

এটি পর্ব আকারে প্রকাশ করা হবে।

লেখাটি কপি করা সম্পূর্ণ নিষেধ


একঃ মাশওয়ারা

মাশওয়ারা অর্থ পরামর্শ করা। মাশওয়ারা হল আল্লাহ তাঃ পছন্দনিয় আমল, সমস্ত নবীগনের সুন্নাত, সাহাবিদের আদত, মুমিনের সিফাত।

মাশওয়ারার উদ্দেশ্য

১) হালের তাকাযাকে সামনে রেখে সকল সাথিভাইয়ের রায় নিয়ে একটি সঠিক সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়ার চেষ্টা করা।

২) সকল সাথীর দিলে দ্বীনের ফিকির পয়দা করা

মাশওয়ারার বিষয়বস্তু

মাশওয়ারার বিষয় বস্তু হল ৩ টি

১) দ্বীনের দায়ী হওয়া ২) নগদ জামাত ৩) পাচকাজ

মাশওয়ারার আদব

গোলাকার হয়ে বসা, ওযু সহকারে বসা, নামাজের সুরতে বসা, প্রথমে একজন আমির নিযুক্ত করা।

আমিরের গুন হল তিনটিঃ ১)  সুস্থ জ্ঞান সম্পন্ন হওয়া ২) বালেগ ৩) পুরুষ। ডান দিক থেকে রায় দেয়া। নিজের রায়কে আমানত মনে করা। অপর ভাইয়ের রায়কে না কাটা। মাশওয়ারার আগে কোন মাশওয়ারা না করা। মাশওয়ারার পরে সমালোচনা না করা। আমির সাহেবের ফায়সালাকে গণিমত মনে করা। নিজের রায়ে ফায়সালা হলে খুশি না হওয়া এবং ফায়সালা না হলে বেজার না হওয়া।

মাশওয়ারার লাভ

দ্বীনের জন্য অল্প সময় চিন্তা ফিকির করা ৬০-৭০ বছর নফল এবাদত থেকে উত্তম। ওহীর বরকত পাওয়া যায়। মাশওয়ারার কারনে আল্লাহ তাঃ তিনার ফায়সালা কৃত আযাবকে উঠিয়ে নেন। খায়ের অ বরকত, ক্ষতি থেকে হেফাজত, হতে হয়না বেইজ্জত

মাশওয়ারার হুকুম

দ্বীনের জন্য মাশওয়ারা করা ওয়াজিব, দুনিয়ার জন্য মাশওয়ারা করা সুন্নাত।

মনতব্য করুন
Share this post on Social Network:
Google+ Pinterest

About Author

Total Posts [1437]
ashraful alom
› Total Post: [1437]
› This author may not interusted to share anything with others

Leave a Reply

You Must be Login or Register to Submit Comment.

Admin by M.M.A Ashraf | © Copyright 2014-17