আচ্ছালামু আলাইকুম ওয়াঃ Login Register

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট এইট এর কিছু সেরা ক্যামেরা টিপস এন্ড ট্রিক্স

Homeএন্ড্রয়েডস্যামসাং গ্যালাক্সি নোট এইট এর কিছু সেরা ক্যামেরা টিপস এন্ড ট্রিক্স

আস সালামু আলাইকুম, আশা করি সবাই ভাল আছেন। আলহামদুলিল্লাহ, আমিও ভাল আছি। কিন্তু সময় টা জানি কেমন। কাজ শেষ করতেই পারতেছি না। সময় যে কোন দিক দিয়ে চলে যায় সেটাই বুঝতে পারি না। ইদানিং ফেসবুকে অনেকের ম্যাসেজের রিপ্লাই দেয়াও বাদ দিয়েছি। এরপরও সময়কে ধরে রাখতে পারি না। পাগলা ঘোড়ার মত সময় নিজ গতিতে দৌড়াচ্ছে। আসলে সময়কে দোষ দিয়ে কি লাভ? সময়ের কাজই তো হচ্ছে দৌড়ানো।

তাই হয়ত এই সময়কে পুরোপুরি ব্যবহার করা সম্ভব হবে না। তাই উচিত সময়ের সদ্ব্যবহার করা। এরপর কাজ শেষ না হলে কিছু করার নেই। মানে ঐ সময়ে এর থেকে বেশি কাজ করাই সম্ভব নয় এইটা ভেবে নিশ্চিন্তে ঘুমিয়ে যান। ঐ যে, ঘুমের কথা বলেছি। ওমনি আমার চোখে ঘুম এসে হাজির হয়ে গেছে। কিন্তু হলেও কিছু করার নেই। আপনাদের সাথে কিছুক্ষণ বক বক করতে এসেছি সেটা না করে আর ঘুমাতে যাচ্ছি না ইনশাআল্লাহ। আজকে আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করতে যাচ্ছি, গ্যালাক্সি নোট এইট এর কিছু বেস্ট ক্যামেরা টিপস।

স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট এইট এর ক্যামেরা ভাল ক্যামেরাগুলোর মধ্যে অন্যতম প্রধান একটি। আপনাদের কি কি জানা দরকার চলুন সেটা জেনে নেয়া যাক।

এটা সত্যিই যে, গ্যালাক্সি এস এইট এবং এস এইট প্লাস এর ক্যামেরা অন্যান্য ফোনের ক্যামেরার তুলনায় অনেক ভাল একটা ক্যামেরা। গ্যালাক্সি এস সেভেন এর ক্যামেরাও সমান মেগাপিক্সেলের হলেও ইমেইজ কোয়ালিটি স্পিড ইত্যাদি ক্ষেত্রে তারা মানুষের মন জয় করতে ব্যর্থ হয়েছে। মানে ইমেইজ কোয়ালিটী এইট এর মত এতো ভাল না।

এটা সত্যিই লজ্জাজনক যে, গ্যালাক্সি এস এইট সিরিজের ফোন এর ক্যামেরা ১২মেগাপিক্সেল সেন্সর ব্যবহার হলেও অন্যান্য ক্যামেরার তুলনায় অনেক ভাল একটা ক্যামেরা। খুব ভাল ছবি উঠে। এর রয়েছে প্রতিকৃতি তৈরি এবং আর্টিফিসিয়াল ব্লার ব্যাকগ্রাউন্ড। সত্যিকার অর্থেই এই ক্যামেরা এর মেইন সেন্সর হতে হাই কোয়ালিটির ছবি উঠাতে এবং ভিডিও করতে খুব ভাল কাজ করে। এন্ড্রয়েড ইকোসিস্টেমে এটা একটা বেস্ট ক্যামেরা। চলুন আরও কিছু জেনে নিই…

মেইন ক্যামেরা নিজের পরিচয় বলে দিচ্ছে

এমনকি এই নোটে দ্বিতীয় বা সেকেন্ডারি কোনো ক্যামেরা নেই। তবে এর যে প্রাইমারি সেন্সর রয়েছে তা মার্কেটের অন্যান্য টপ ফোনগুলোর সাথে প্রতিদ্বন্দিতা করছে। মানে ক্যামেরার ছবি দেখলেই বুঝা যায় যে এটা এস এইট দিয়ে তোলা।

স্যামসাং তার এই এস এইট ফোনে ১২মেগাপিক্সেলের আপডেটেড সনি সেন্সর ব্যবহার করতেছে। আসলে অনেকেই বলে যে, তারা যেই সেন্সর ব্যবহার করতেছে তা এস সেভেন এর অনুরুপ এটা একটা গুজব। আসলে আপডেটেড সেন্সরে এমন কিছু সুক্ষ্ম করা হয়েছে যা সকল সিনারিকে খুব ভালভাবে ক্যাপচার করতে পারে। আসলে সত্যিকার অর্থে শুধু হার্ডওয়্যারের যে সুক্ষ পরিবর্তন হয়েছে তা কিন্তু নয়। এর সাথে ক্যামেরা সফটোওয়্যারেরও অনেক বড় ধরণের পরিবর্তন আনা হয়েছে ২জিবি র‍্যামের এই ফোনে।

উপরের ছবিটি একটি পরীক্ষামূলক ছবি। যা দেখে স্পষ্ট বুঝা যাচ্ছে যে, আবহাওয়াটি ছিল গরম, আর ছবিটি কালারে পরিপূর্ণ, অনেক পরিষ্কার একটা ছবি।এছাড়া এর সাটার স্পিড সঠিকভাবে চয়েজ করা যায় সফটওয়্যারে এবং রয়েছে এক্সপোজার সেটিং। এস এইট এর মতই নোট এইট এ ক্যামেরার মাধ্যমে অনেক ভাল মানের ছবি তোলা যায়। এটা অনেক চেলেঞ্জিং সিনারিও ধারণ করতে সক্ষম। এছাড়া এর রয়েছে ম্যানুয়াল মোড যা সবচেয়ে ভাল। আর অটোফোকাস পয়েন্ট সিস্টেম তো আছেই। এটা অনেকটা ব্যয়বহুল মিরর ছাড়া ডিএসএলআর ক্যামেরার মত কাজ করে।

উপরের প্রথম ছবিটি গ্যালাক্সি নোট এইট এ তোলা আর পরের টা আইফোনে সেভেন প্লাস এ তোলা। প্রথম টি নোট এইট এ Live focus mode ব্যবহার করে তোলা আর পরের টি আইফোনে Portrait mode এ তোলা। তবে হ্যা শিগ্রি আইফোন এইট প্লাস আসবে। সেটার ক্যামেরা ভাল হতে পারে।

তো চলুন নোট এইট আর আইফোন সেভেন প্লাস এর আরও কিছু ছবি দেখে নিই আগের মত…

আশা করি আপনাদের আর বুঝতে অসুবিধা হওয়র কথা না যে, আসলে কোন ক্যামেরা ভাল কাজ করেছে। আসলে আইফোন যেই পোরট্রেইট ইফেক্ট ব্যবহার করে তার কিছুটা বেশি ব্যাকগ্রাউন্ড ব্লার ইফেক্ট টা বেশি স্যামসাং এর ডিফল্ট ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে। কিন্তু এটা সবচেয়ে ভাল খবর যে, স্যামসাং নোট এইট ব্যাকগ্রাউন্ড এর ব্লার কে রিয়েল টাইম এডজাস্টমেন্ট করতে allow করে। যেটা খুবই উপকারী রিয়েল ছবি আর ইফেক্ট এর মধ্যে সমন্বয় সাধনের জন্য।

এটা অনেক দূরের জিনিস জুম করতে সক্ষম

সব ফোনেই তো অনেক দূরের জিনিস জুম করা যায়। তবে সেটা বেশি স্পষ্ট হয় না। তবে আমি এখন যেই ছবিগুলো দেখাবো সেটা দেখলে আপনি অবাক হয়ে যেতে পারেন। কিন্তু এতে আমার কিছু করার নেই সত্যি তো সত্যিই তাই না? চলুন গ্যালাক্সি নোট এইট এবং আইফোন সেভেন প্লাস এর জুম করার ক্ষমতা একটু দেখে নি

গ্যালাক্সি নোট এইট 1x,2x,10x জুম

সবগুলো দেখানোর দরকার নাই। শুধু আইফোনের সাথে নোট এইট এর শেষ ছবিটীর জুম করা চিত্র একটু দেখাতে চাই।

গ্যালাক্সি নোট এইট 1x zoom and আইফোন প্লাস 10x zoom

প্রথমটা নোট এইট আর পরের টা আইফোন সেভেন প্লাস। কোনটা ভাল হয়েছে সেটা দেখার ভার আপনার উপরই ছেড়ে দিলাম।

আসুন স্লো মোশনের ভিডিও করলে সেটা কেমন দেখায় একটু দেখি

 

720 p আর 240fps . আশা করি ভিডিও টি দেখেছেন? এটা নোট এইট এ করা। তাই আর কিছু বললাম না এই ব্যাপারে।

ফোনের বিল্ট ইন ফটো ইডিটর

নোট এইট এর রয়েছে বিল্ট ইন ফটো ইডিটর। যা সত্যিই অসাধারণ

কম আলোতেও ছবি শুট করা যায়

আমি জানি সব ফোনেই আলো কম থাকলে ফ্ল্যাশ দিয়ে শুট করা যায়। আমি যেটা বুঝাতে চেয়েছি আশা করি সেটা নিচের ছবিটি দেখলেই বুঝতে পারবেন।

আশা করি আর কিছু বলার দরকার নেই। এক কথায় নোট এইট এর ক্যামেরা অসাধারণ। তো আজকের মত এ পর্যন্তই

আল্লাহ হাফিজ।

মনতব্য করুন

Originally posted 2017-09-24 12:18:13. Republished by Blog Post Promoter

Share this post on Social Network:
Google+ Pinterest

About Author

Total Posts [6]
admin
› Total Post: [6]
› This author may not interusted to share anything with others

Leave a Reply

You Must be Login or Register to Submit Comment.

Admin by M.M.A Ashraf | © Copyright 2014-17